বাংলাদেশে ফেসবুকের নতুন ফিচার: ফেসবুক ব্লাড ডোনেট

প্রযুক্তি ভাবনা দীপান্বিতা সূত্রধর || 23 January 2018

বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট ফেসবুক বাংলাদেশের নিরাপদ রক্তদান ও সংশ্লিষ্ট সমস্যা সমাধানের জন্য নতুন ফিচার এনেছে।


প্রায়ই আমরা কমবেশি দেখি যে আমাদের বন্ধু বা পরিচিত অনেকে জরুরী রক্ত চেয়ে ফেসবুকে পোস্ট দেয়। আমরা অনেক সময়েই সাহায্য করতে চাই কিন্তু প্রয়োজনীয় তথ্যের অভাবে অনেক সময় রক্তদান করা হয় না।

অন্যান্য অনেক উন্নয়নশীল দেশের মত বাংলাদেশেও নিরাপদ রক্ত পাওয়া, বিশেষ করে জরুরী ভিত্তিতে রক্ত দিতে আগ্রহী মানুষ খুঁজে পাওয়া একটু কঠিন।

বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট বাংলাদেশের এই সমস্যার সমাধানের প্রচেষ্টায় নতুন ফিচার এনেছে ফেসবুক। গত ২২ জানুয়ারি থেকে বাংলাদেশে ফেসবুক ব্যবহারকারীরা নিজেদের রক্তের গ্রুপ নির্বাচন করে ‘ফেসবুক ব্লাড ডোনার’ বা রক্তদাতা হিসাবে নিজেকে চিহ্নিত করতে পারবে বলে জানান ফেসবুকের স্বাস্থ্য বিষয়ক প্রোডাক্ট ম্যানেজার হেমা বুড়ারাজু। হেমা আরও জানান যে সবার তথ্য গোপনীয়তার সাথে রক্ষা করা হবে কিন্তু কেউ যদি তাদের নিজস্ব প্রোফাইলে দেখাতে চায় তবে তথ্য এডিট বা পরিবর্তন করতে পারবে এমনকি শেয়ারও করতে পারবে।

ব্লাড ডোনেট ফিচারটি অনেক সহজেই ব্যবহার করতে পারবে সবাই। মূলত ফেসবুকে যখন কারো রক্ত প্রয়োজন হবে বা এই জাতীয় পোস্ট শেয়ার করবে তখনই ‘ফেসবুক ব্লাড ডোনার’ এর কাছে রক্তের গ্রুপের উপর ভিত্তি করে বিশেষ বার্তা বা ম্যাসেজ পৌঁছে যাবে। ওয়েব ফরম্যাট, অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস এ ফেসবুকের এই ফিচারটি কাজ করবে।

২০১৭ সালের অক্টোবর মাসে ভারতে এই ফিচার শুরু হয় এবং প্রায় ৬০ লাখ ফেসবুক ব্যবহাকারী এতে নিজেদেরকে রক্তদাতা হিসাবে নিবন্ধিত করে। ভারতে এই ফিচারের সফলতার পর বাংলাদেশে এইটি চালু করার সিদ্ধান্ত নেয় ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

ফেসবুকের ব্লাড ডোনেট ফিচারটি দেশের হাসপাতাল, রক্ত ব্যাংক, অন্যান্য সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান যারা জরুরী ভিত্তিতে রক্ত প্রদানের কাজ করে থাকে তাদেরকে অনেক সহজেই যোগাযোগ করা যাবে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এর তথ্য অনুযায়ী বিশ্বের ৭১ দেশের মধ্যে বাংলাদেশ একটি যেখানে নিরাপদ রক্ত পাওয়া কিছুটা কঠিন। ফেসবুকের এই ফিচারের মাধ্যমে মানুষের মধ্যে নিরাপদ রক্তদান ও এ সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি পাবে এবং মানুষ নিশ্চিন্তে প্রয়োজন অনুযায়ী রক্ত পাবে বলে আশা করা যাচ্ছে।


Facebook's new feature in Bangladesh: Facebook Blood Donate

Tech Dipanwita Sutradhar on 23 January 2018

Facebook's new feature in Bangladesh will increase the awareness about safe blood donation as well as responsiveness among people and people are expected to get blood as per their need.


Every now and then we see that our Facebook friends or any known persons give a post that they need emergency blood for their relatives or friends. Sometimes we cannot help them due to inappropriate information or we just do not know where we will have safe blood to donate.

Like many other developing countries, finding safe blood in Bangladesh, especially the people who want to give blood on an emergency basis, is a bit difficult to find.

Facebook's Health Product Manager, Hema Budaraju, said that since January 22, Facebook users will be able to recognize themselves as 'Facebook Blood Donor' or by selecting their own blood group. Hema also said that all the information of the donor will be kept confidential. Nonetheless, if someone wants to show on their own profiles, then they can edit or modify information and even share that they are the Facebook blood donor.

The blood donation feature can be used very easily by every Facebook users. Whenever someone's blood is needed and they share post- then special message or notification will be reached based on blood group as per 'Facebook Blood Donor'. This feature of Facebook will work in Web, Android, and iOS.

This feature started in India in October 2017 and nearly 6 million Facebook users registered themselves as donors. After this immense success in India, Facebook decided to launch it in Bangladesh.

With the help of Facebook's blood donate feature it will be easy to communicate with country's hospitals, blood banks, and other government and non-government organizations, who provide emergency blood supply.

As stated by the World Health Organization, Bangladesh is one of the 71 countries in the world where it is a bit difficult to get safe blood. This feature of Facebook will increase the awareness of safe blood donation as well as responsiveness among people and people are expected to get blood as per their need through the feature.