নয়নাভিরাম সৌন্দর্যের বেলাভূমি কক্সবাজার

ভ্রমণ বিবরণ জুআয়রা হোসেন || 25 January 2018

অপরূপ সৌন্দর্যের সমাহার বাংলাদেশ। চারিদিকে সবুজে ঘেরা প্রকৃতি। ভ্রমণপ্রিয় মানুষের জন্য রয়েছে ঘুরে বেড়ানোর অসাধারণ সব জায়গা।


কর্মব্যস্ত জীবনে সামান্য অবসরে কে না চায় ঘুরে বেড়াতে? দেশের ভেতরে ভ্রমণ পরিকল্পনায় সবার আগেই আসে কক্সবাজারের নাম। নয়নাভিরাম সৌন্দর্যের অধিকারী বিশ্বের দীর্ঘতম এই সমুদ্র সৈকতের আশেপাশে রয়েছে ঘুরে দেখার মত অনেক মনোরম জায়গা। মনোমুগ্ধকর এবং চোখ জুড়ানো সৌন্দর্যের বেলাভূমি কক্সবাজার বরাবরই মন কাড়ে পর্যটকদের।

সমুদ্রপ্রেমী মানুষদের জন্য অন্যতম প্রধান আকর্ষণ হচ্ছে কক্সবাজার। বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে অবস্থিত বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজার তার প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের জন্য বিখ্যাত। চট্টগ্রাম শহর থেকে ১৫২ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত এটি হচ্ছে দেশের সবচেয়ে বড় পর্যটন কেন্দ্র।

বিস্তৃত বেলাভূমি, সারি সারি ঝাউবন, সৈকতে আছড়ে পড়া বিশাল ঢেউ, বিশাল সমুদ্রে ভেসে বেড়ানো মাছধরা নৌকা, সকালের সূর্যোদয় ও সন্ধ্যায় বিশাল সমুদ্রের বুকে সূর্যাস্তের দৃশ্য উপভোগ করা, সুউচ্চ পাহাড়ের চূড়া, বাতাসের শোঁ শোঁ শব্দ সব মিলিয়ে এযেন অপরূপ সৌন্দর্যের বিশাল সমারোহ। শুধু দেশীয় নয়, প্রতি বছর হাজার হাজার বিদেশী পর্যটকও আসেন এই সৌন্দর্য উপভোগ করতে। এখানে রয়েছে বেশ কিছু দৃষ্টিনন্দন স্থান।

লাবণী পয়েন্টকে কক্সবাজারের প্রধান সমুদ্র সৈকত হিসেবে ধরা হয়। এখানে পর্যটকদের আকর্ষণের জন্য রয়েছে ঝিনুকসহ রকমারী সামগ্রীর অনেক দোকান। লাবণী পয়েন্ট থেকে অল্প দূরত্বেই রয়েছে কলাতলী সৈকত।

সমুদ্র সৈকত থেকে ১৮ কিলোমিটার দক্ষিণে রয়েছে হিমছড়ি। হিমছড়ি ঝর্ণা আর পাহাড় এখানকার প্রধান আকর্ষণ। কক্সবাজার থেকে হিমছড়ি যেতে আরেকটি আকর্ষণ হচ্ছে পথের বামে সবুজে ঘেরা বিশাল পাহাড় আর অন্যদিকে সমুদ্রের নীল জলরাশি। রাস্তা ধরে যেতে যেতে পথের এই অপরূপ সৌন্দর্য মনে জাগাবে এক প্রশান্তির দোলা। বর্ষা মৌসুমে হিমছড়ি অনেক প্রাণোবন্ত থাকে। পাহাড়, ঝর্ণা, অরণ্য আর সমুদ্রের এক অপরূপ মিলনমেলা এ স্থান।

কক্সবাজারের আরেকটি আকর্ষণ হচ্ছে ইনানী সৈকত। এটি কক্সবাজার থেকে ৩৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। অভাবনীয় সুন্দর এই জায়গা পর্যটকদের পছন্দের শীর্ষে। এখানকার পানি বেশ পরিষ্কার হওয়াতে সমুদ্রস্নানের জন্য একে উৎকৃষ্ট মনে করা।

বঙ্গোপসাগরের বুকে অসীম সৌন্দর্য নিয়ে ছোট একটা দ্বীপ সেন্ট মার্টিন। বাংলাদেশের সর্ব দক্ষিণে অবস্থিত এই নয়নাভিরাম দ্বীপের আয়তন ৮ বর্গ কিলোমিটার। এই প্রবাল দ্বীপের আঞ্চলিক নাম নারিকেল জিঞ্জিরা। টেকনাফ থেকে সেন্ট মার্টিন যাওয়াটাও রীতিমত রোমাঞ্চকর। এই দ্বীপে রয়েছে অনেক নারিকেল গাছ এবং সেইসাথে দেখা যায় অনেক কেয়া গাছ। দ্বীপের চারিদিকে চোখে পরে অসংখ্য প্রবাল, শামুক, ঝিনুক। এখানের নির্জন সমুদ্র সৈকত পর্যটকদের মুগ্ধ করে। টেকনাফ থেকে সি-ট্রাক, জাহাজ বা ট্রলারে করে সেন্টমার্টিন যাওয়া যায়।

শীতকালে অনেক অতিথি পাখির আগমন ঘটে দেশের একমাত্র পাহাড়ী দ্বীপ মহেশখালিতে। নৌপথে কক্সবাজার থেকে মহেশখালীর দূরত্ব ১২ কিলোমিটার। কয়েকশ বছর আগে প্রলয়ংকারী ঘূর্ণিঝড়ে এটি কক্সবাজারের ভূখন্ড থেকে আলাদা হয়ে যায়। এটি বাংলাদেশের অন্যতম শুটকি প্রক্রিয়াজাতকরণ এলাকা। তাছাড়া পাহাড়ের চূড়ায় রয়েছে আদিনাথ মন্দির। আঁকাবাঁকা সিঁড়ি ভেঙ্গে পাহাড়ের উপরে উঠলেই দেখা যাবে এই মন্দির।

মহেশখালী উপজেলায় আরেকটি সুন্দর ভ্রমণোপযোগী জায়গা হচ্ছে সোনাদিয়া দ্বীপ। একটি খাল দ্বারা এটি মহেশখালী দ্বীপ থেকে আলাদা হয়েছে। এখানে লাল কাকড়া দেখতে পাওয়া যায়। সেইসাথে দেখা মিলে বিভিন্ন রকমের জলাচর পাখির।

কক্সবাজারের সন্নিকটেই রয়েছে বৌদ্ধদের তীর্থস্থান রামু, যেখানে রয়েছে অনেকগুলো মন্দির, প্যাগোডা। তাছাড়া রয়েছে বৌদ্ধ ধর্মের অনেক নিদর্শন। বৌদ্ধধর্ম চর্চার অন্যতম পীঠস্থান এটি।

ঢাকা থেকে বাসে কিংবা প্লেনে করে সরাসরি কক্সবাজার যাওয়া যায়। তাছাড়া বাংলাদেশে গো জায়ান, আকাশবাড়ি হলিডেজ, এশিয়ান হলিডেজ, ট্রাভেল প্ল্যানার্স, ট্রাভেল জু ইত্যাদি  বিভিন্ন ট্রাভেল এজেন্সি রয়েছে যারা ভ্রমণ শুরু থেকে, হোটেল, খাবার এবং আশেপাশে ঘোরা ইত্যাদি সবকিছুর আয়োজন করে থাকে।

Cox’s Bazar: The serenity amidst all the chaos

Travel Zuaira Hossain on 25 January 2018

Bangladesh is full of natural beauty. Greenery and mountainous, it is the perfect destination for nature lovers.


Cox's Bazar, well renowned as the populous tourist destination in Bangladesh, bears the pride of having the world recording longest sea beach in the world. The beach at Cox's is an approximate length of 155 km and is a sandy, mildly sloppy. Who doesn't know about this right? Sea lovers know where to go when to get calm and lovers know how the beach enhances their romance. But it is not just the beach that attracts the tourist these days. The entire Cox's Bazar is now developed and open for exploring.

Cox’s Bazar is an ultimate natural place. It is a perfect destination for people who loves sea. It is located in the south-eastern side of the country. It is very famous for its marvelous natural beauty. This is the biggest tourist center of Bangladesh. Cox’s Bazar is 152 km away from Chittagong city.

The sandy beach, huge waves, fishing boats floating on the ocean, cold breeze, the sunrise in the morning, watching the sunset in the beach, high mountain peaks, will surely be most enjoyable. Not just people of  Bangladesh, every year thousands of foreign travelers visit Cox’s Bazar. There are many amazing places to visit around.

Laboni point is considered as the main beach of Cox’s Bazar. There are various shops types of shops around which attracts tourist. Another beach, Kolatoli beach is a few minutes away from Laboni point.

Himchori is 18 km south from Cox’s Bazar. Himchori waterfall and hills are the main attraction of this place. The road from Cox’s Bazar to Himchori is another thing tourist loves the most. There are hills with greenery in the left and on the other side there is the blue ocean. In rainy season the Himchori waterfall is fabulous and full waterfall can be enjoyed. It is a great combination of waterfall, hills and the ocean.

Inani beach is another tourist attraction. It is 35km from from Cox’s Bazar. Besides the beauty it’s also famous for its clean water and rocky beach. 

Toward the ultimate south from Cox's Bazar beach is a remote small island, Saint Martin. The island is as small as 8 square kilometers. The local name of this coral island is Narikel Jinjira due to the presence of ample coconut trees in the area, while its popular amongst the tourists as Saint Martin Island. To reach the small piece of sanity tourists travel by boat from Teknaf, traveling a length of 9 kilometers taking only 2 hours. There are many corals, snails, mussels etc around the island. The calm beach mostly attracts the tourists at Saint Martin and can be traveled via Sea-truck, Ships or trawlers.

Moheshkhali Island is another tourist attraction and is 12km away from Cox’s Bazar. This is like a small village that is mostly populated by Hindu believers. They welcome tourists to roam around their village and even do not mind anyone visiting their temples. Hundreds of years ago, due to a devastating cyclone, it was separated from the land of Cox's Bazar. It is also famous for dry fish processing. There is the famous Adinath temple at the peak of the mountain. 

Sonadia Island is another beautiful place in Moheshkhali Upazila. It is separated from Moheshkhali by a canal. Red crabs are seen here. Besides tourist can enjoy watching different types of birds. 

Ramu is the Buddhist pilgrimage center near Cox's Bazar. There are many temples and Pagoda. Besides, there are various religious symbols in Ramu.

There are direct buses and air mode, through which one can travel to Cox’s Bazar. Various travel agencies like Go zayan, Akashbari Holidays, Asian Holidays, Travel Planners, Travelzoo etc can process all the travel arrangements.