শুরু হতে যাচ্ছে ডিজিটাল আইসিটি মেলা

ব্যবসা বাণিজ্য আফসানা পারভীন তন্বী || 28 January 2018

আরও জাঁকজমকভাবে এবং মন কাড়া বিভিন্ন রকম প্রযুক্তির উদ্ভাবনা নিয়ে আয়োজিত হতে যাচ্ছে ডিজিটাল আইসিটি মেলা ২০১৮।


ডিজিটাল আইসিটি মেলা তথা কম্পিউটার মেলা শুরু হবে আগামী ৭ ফেব্রুয়ারী।  তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির উন্নয়নে মেলাটি এক বিশেষ ভুমিকা রাখে। এই পর্যন্ত আট বার সফলভাবে ডিজিটাল আইসিটি মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। যা প্রযুক্তি প্রেমীদের মনে বিশেষ জায়গা করে নিয়েছে।

ফলে এবার আরও জাঁকজমকভাবে এবং মন কাড়া বিভিন্ন রকম প্রযুক্তির উদ্ভাবনা নিয়ে আয়োজিত হতে যাচ্ছে ডিজিটাল আইসিটি মেলা ২০১৮। আগামী ৭ ফেব্রুয়ারী থেকে ১১ তারিখ পর্যন্ত মোট পাঁচ দিন ব্যাপী মেলাটি অনুষ্ঠিত হবে  ঢাকার এলিফ্যান্ট রোডের সিটি সেন্টারে (মাল্টিপ্ল্যান)।

প্রতিবারের মত এবারও মেলাটির একটি প্রতিপাদ্য বিষয় আছে। আর তা হল ‘ডিজিটাল লিটারেসি ফর এভরিওয়ান’। অর্থাৎ সবার কাছে ডিজিটাল শিক্ষার গুরুত্ব অনুধাবন করানো এবারের মেলার মূল উদ্দেশ্য। সম্প্রতি ২২শে জানুয়ারী কম্পিউটার সিটি সেন্টার দোকান মালিক সমিতির পক্ষ থেকে সংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে মেলার লোগো উন্মোচন করা হয়েছে।

সেখান থেকে মেলার আগ্রিম কিছু তথ্য জানা গিয়েছে। এবারের মেলা বিগত সব বারের থেকে বেশ বড় এবং প্রাণবন্ত হবে বলে জানা গিয়েছে। মেলাকে পরিপূর্ণ করতে ৬৫০ টি প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করছে। যারা নিয়ে আসছে সম্পূর্ণ নতুন এবং আকর্ষণীয় প্রযুক্তির প্রদর্শনীয়। দর্শকদের জন্য থাকবে আকর্ষণীয় ছাড়ের সুবিধা। ফলে পছন্দের প্রযুক্তির জিনিসগুল খুব সহজেই ক্রয় করতে পারবেন সবাই।

স্পন্সরশীপ সব ইভেন্টের একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কম্পিউটার মেলা-২০১৮ এর প্লাটিনাম স্পন্সর হিসেবে আছে এসার, ডেল, এইচপি, লজিটেক ও এক্সট্রিম। আসুস, এ-ফোরটেক, লেনেভো গোল্ড স্পন্সরশীপ হিসেবে থাকছে। সিলভার স্পন্সর হল টিপি-লিংক, ডি-লিংক, ইউসিসিস্পন্সর টেন্ডা এবং গেমিং পাটনার গিগাবাইট।

কিছু ভিন্নধর্মী আয়জন এবারের মেলাকে বিগত সব বারের থেকে আরও আকর্ষণীয় করে তুলেছে। উদাহরণস্বরূপ ক্যামেরা জোন, সি সি ক্যামেরা জোন, গেমিং জোন, সিনেমা জোন, বিজ্ঞান মেলা, রবোটিক্স মেলা ইত্যাদি বিষয়গুলো সবাইকে আকৃষ্ট করবে বলে আশা করা যায়।

শিশুদের জন্য রয়ছে বিশেষ প্রতিযোগিতার ব্যবস্থা। শিশুদের জন্য চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, অন্যদের জন্য সেলফি প্রতিযোগিতা ছাড়াও সেলিব্রিটি মেলা পরিদর্শন এবারের মেলাকে একেবারে রসালো করে তুলবে বলে আশা করা যায়। ডিজিটাল আইসিটি মেলা তথা কম্পিউটার মেলায় আরও থাকছে শীতকালীন পিঠা উৎসব সহ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের জন্য বিনামূল্যে মেলায় প্রবেশের বিশেষ সুবিধা থাকবে। তবে অন্যদের জন্য প্রবেশ মূল্য ধার্য করা হয়েছে মাত্র ১০ টাকা। প্রতিটা প্রবেশ টিকিটের সাথে থাকছে র‌্যাফেল টিকিট। মেলার শেষে র‌্যাফেল ড্র অনুষ্ঠিত হবে এবং  বিজয়ীদের জন্য  থাকবে আকর্ষণীয় পুরস্কার।



Digital ICT Fair-2018 to commence on 7th February

Business Afsana Tanni on 28 January 2018

Digital ICT Fair-2018 is to commence soon and becoming the part of this mega event is a matter of time now. The event is going to be a blast of the year.


Digital ICT fair is one of the largest platforms in the country that enhances information and technology flourishment. Bangladesh is a developing country with huge potential but lagging behind digital development from before.

Realizing this hard fact, Government is now more focused to develop this sector more than ever. With the patronage of Government, people have already engaged a lot in innovation and contribution of ICT sector developments. Digital ICT fair is the burning example which plays a vital role to increase digital awareness.

The Digital ICT Fair-2018 is about to commence on 7th February, 2018 and is taking place in Multiplan Centre located in Elephant road, Dhaka, with a slogan of ‘Digital Literacy for Everyone’ .

The fair will be held for 5 consecutive days from 7th to 11th February. It will be organized by ECS Computer City Centre Shop Owners’ Association. Recently the logo for the event has been revealed by the organizing body at association’s office located at Multiplan Centre at Elephant Road in Dhaka on 22nd January.

To fulfill the vision ‘digital literacy’, 650 organizations will participate in the event. Participating organization will display the latest and most attractive technologies on this occasion. Companies will also sell their product at the same time.

The event is going to be a blast of the year. It has been organised with a view to technological bloom but designed fantastically with scopes of entertainment. For example, camera zone, gaming zone, movie zone, science fair, robotics fair will also be the attractions of the event.

We can benchmark it to be a platform for information with entertainment or ‘infotainment’ in short. Many exciting competition like children’s art competition, selfie competition for adults etc will make it more communicable and popular. People will find cultural activities like ‘winter pitha utshob’ in the premises which certainly justify the festive appeals of mass people.

Another attraction is raffle draw ticket which to be provided at the entrance but the draw will be published after the event. The lucky winner of the rafale draw will receive a lucrative gift.

No doubt that activities of this event designed to attract everyone ends up contributing the digital growth and prosperity of nation. Digital ICT Fair-2018 is knocking at our door and becoming the part of this mega event is a matter of time now. We hope it to be a success.