ঢাকায় ঘুরে দেখার তিনটি স্থানঃ আহসান মঞ্জিল, লালবাগ কেল্লা ও হাতিরঝিল

ভ্রমণ বিবরণ জুআয়রা হোসেন || 6 March 2018

সাপ্তাহিক ছুটিতে সবাই চায় পরিবার-পরিজন নিয়ে ঘুরে বেড়াতে। সব সময় হয়ত ঢাকার বাইরে কোথাও ঘুরতে যাওয়া হয়ে উঠেনা। তবে ঢাকার ভেতরেই অনেক জায়গা আছে যেখানে সারাদিন কিংবা বিকেলে পরিবার নিয়ে কিছু সময় কাটানো যায়।


রাজধানী ঢাকা শহর। এই শহরের বিভিন্ন প্রান্তে রয়েছে ঘুরে দেখার মত অনেক দর্শনীয় জায়গা।

আহসান মঞ্জিলঃ পুরান ঢাকার ইসলামপুরে বুড়িগঙ্গা নদীর তীরে অবস্থিত এই বিশাল প্রাসাদ। এটি ছিল ঢাকার নবাবের প্রাসাদ। বর্তমানে এটা জাদুঘর হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। আহসান মঞ্জিলের প্রতিষ্ঠাতা নওয়াব আব্দুল গণি তাঁর পুত্র খাজা আহসানুল্লাহ-এর নামাণুসারে এর নামকরণ করেন। ১৮৫৯ সালে আহসান মঞ্জিলের নির্মাণ কাজ শুরু হয়। বর্তমানে এটি বাংলাদেশ জাদুঘর কর্তৃক পরিচালিত। ভবনে দেখার জন্য রয়েছে নবাবদের আমদের ডাইনিং রুম, তাদের ব্যবহৃত আসবাব, বাসন, বিভিন্ন রকমের তৈল চিত্রসহ আরো অনেক কিছু। পরিবার নিয়ে ছুটির বিকেল সুন্দর এখানে কাটানো যাবে।

ভবনটি দেখতে বেশ সুন্দর এবং মূল ভবনে উঠার সিঁড়িগুলোও। সামনে রয়েছে বিশাল মাঠ। পাশেই বুড়িগঙ্গা। চাইলেই নৌকা ভাড়া করে ঘুরে বেড়ানো যাবে। আহসান মঞ্জিল ঢাকার অন্যতম শ্রেষ্ঠ স্থাপত্য নিদর্শন।

লালবাগ কেল্লাঃ ঢাকার দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে মুঘল সুবাদার মুহাম্মদ আজম শাহ ১৬৭৮ সালে লালবাগ কেল্লার নির্মাণ কাজ শুরু করেন। তিনি ছিলেন সম্রাট আওরঙ্গজেবের পুত্র। পরবর্তীতে শায়েস্তা খাঁ এর পুনর্নির্মাণ কাজ শুরু করলেও তাঁর কন্যা পরী বিবির মৃত্যুর পর আর নির্মাণ কাজ শেষ করেননি। পরী বিবিকে লালবাগ কেল্লার দরবার হল এবং মসজিদের মাঝামাঝি সমাহিত করা হয়। প্রথমে এই কেল্লার নাম ছিল আওরঙ্গবাদ। ১৭শ শতকের অসমাপ্ত এই দূর্গ ঢাকার অন্যতম দর্শনীয় স্থান। জায়গাটিতে নানা রকমের বাহারী গাছ লাগিয়ে শোভা বর্ধন করা হয়েছে। এটি প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত। লালবাগ কেল্লায় রয়েছে দেওয়ান-ই-আম, দরবার হল ও হাম্মাম খানা, পরীবিবির সমাধী, তিন গম্বুজ মসজিদ ইত্যাদি।

আশির দশকে এই দূর্গকে সংস্কার করে একে দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত করা হয়। মোঘল আমলের উল্লেখযোগ্য নিদর্শনের মধ্যে এটি অন্যতম। কেউ ইচ্ছা করলে একদিনেই লালবাগ এবং আহসান মঞ্জিল ঘুরতে পারবেন।

হাতিরঝিলঃ ২০১৩ সালে হাতিরঝিল জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করা হয়। বর্তমানে এটি নগরবাসীর সাপ্তাহিক ছুটি কাটানোর জন্য অন্যতম পছন্দ। অনেকে বিকেলে হাঁটতে আসেন এখানে। শুধু ঘুরে বেড়ানোর জন্য নয় এই রাস্তার কারণে বিভিন্ন জায়গায় যাতায়াতেও বেশ সুবিধা হয়েছে। সন্ধ্যায় এখানে অনেকটা উৎসবমুখর পরিবেশ তৈরি হয়। এটি রাজধানীর অন্যতম বিনোদন কেন্দ্র।

লেকের পাশে কিংবা ব্রিজে বসে অনেকেই এর সৌন্দর্য উপভোগ করেন। ঘুরে দেখার জন্য রয়েছে বাস। সেগুলো পুরো হাতিরঝিল ঘুরিয়ে দেখায়। কিছুদিন আগে লেকে চালু হয়েছে ওয়াটার ট্যাক্সি। এগুলোতে চড়ে আশেপাশে ঘুরে দেখাও বেশ উপভোগ্য।

Three places to visit in Dhaka: Ahsan Manzil, Lalbagh fort, Hatirjheel

Travel Zuaira Hossain on 6 March 2018

Almost everyone loves to travel or visit new places. Due to lack of time, many people cannot go outside Dhaka to travel. There are many places inside Dhaka city where one can spend the weekend with family.


The capital city also many beautiful places to explore.

Ahsan Manzil: Ahsan Manzil is located at Islampur in Old Dhaka. It is situated on the bank of Buriganga. It was the house of the Nawab of Dhaka. This palace was built by Nawab Abdul Ghani and it was named after his son Khwaja Ahsanullah. In 1859 the construction work of the palace began. Now it is considered as a museum which is conducted by the National Museum of Bangladesh.

There are many used things of the Nawabs, their photos, dining room etc many things to see. It can be a perfect place to spend the weekend with family.

The main building is very beautiful and the long stairs mainly attract people. There is a big field in front. Also, it is at the bank of Buriganga, so one can hire a boat and enjoy a boat journey on the river as well.

Lalbagh Fort: Lalbagh fort is situated in the south-western part of Dhaka city. It is also situated near Buriganga river. The construction work of the fort began in 1678 by Subadar Muhammad Azam Shah. He was the son of Mughal emperor Aurangzeb. Later on, Shayesta khan started to rebuild it but did not finish it after his daughter Pari bibi passed away. She was buried there as well in the middle of Darbar hall and the mosque. Previously the fort was called as Aurangabad.

This unfinished fort of the 17th century is one of the most visited places in Dhaka. It is restrained by the Department of Archaeology. Various kinds of trees have been planted inside the fort for making it more mesmerizing. There are some buildings called Diwan-e-aam, Dabar hall, Hammam khana, Pari bibis tomb, tin gambuj mosque etc. In the 1980s, this fort was renovated and opened to visitors. One can visit both Ahsan Manzil and Lalbagh fort on the same day.

Hatirjheel: Hatirjheel was opened to visitors in 2013. It has become the most popular place for city dwellers to spend the weekend. This has lessened the road distance to go to many places as well as it is also a perfect place to spend the afternoon.

There are buses to explore the place. Recently water taxis have been started on the lake.