চিত্রা হরিণ, শান্ত প্রকৃতি আর চারিদিকে সবুজে ঘেরা নোয়াখালির নিঝুম দ্বীপ



জুআয়রা হোসেন


ভ্রমণ বিবরণ | 19 March 2018


Read in English

Nijhum Dwip: Island of natural beauty

নোয়াখালী জেলার হাতিয়া উপজেলার অন্তর্গত ছোট একটি দ্বীপ নিঝুম দ্বীপ। এটি মূলত একটি চর, যার পুর্ব নাম ছিল চর ওসমান। বল্লার চর, কমলার চর, চর ওসমান ও চর মুরি এই চারটি চরের সমন্বয়ে গঠিত হয়েছে এই দ্বীপ। ১৯৫০ খ্রিস্টাব্দের দিকে এই দ্বীপটি জেগে উঠে। প্রথমদিকে এই দ্বীপে কোন লোকবসতি ছিলনা। পরবর্তীতে বন বিভাগ এই চরে প্রাথমিকভাবে চার জোড়া হরিণ ছাড়ে। বর্তমানে এই দ্বীপটি হরিণের অভয়ারণ্য। দ্বীপটি নোনা পানি বেষ্টিত এবং অনেকে একে বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম ম্যানগ্রোভ ফরেস্ট বলে দাবি করেন। মাইলের পর মেইল কেওড়া বন আর ফাঁকে ফাঁকে লুকিয়ে থাকা হরিণ হচ্ছে এই বনের প্রধান আকর্ষণ। কেওড়া ছাড়াও রয়েছে আরো অনেক প্রজাতির বৃক্ষ। বন বিভাগ এই দ্বীপের শোভা বর্ধনের জন্য আরো অনেক উদ্যোগ গ্রহণের পরিকল্পনা করছে।

নিঝুম দ্বীপে মহিষ এবং হরিণ ছাড়া হিংস্র কোন প্রাণী নেই। এখানে প্রায় ৩৫ প্রজাতির পাখি রয়েছে। এই দ্বীপে শীতকালে আসে নানারকমের অতিথি পাখি এবং নানারকমের হাঁস। বর্ষাকালে এখানে ইলিশ মাছ পাওয়া যায়। অন্যান্য সময় পাওয়া যায়


অপরূপ সৌন্দর্যের দেশ আমাদের বাংলাদেশ। সবুজে ঘেরা এদেশের বিভিন্ন প্রান্তে রয়েছে অনেক সুন্দর সুন্দর জায়গা। এমনি সুন্দর একটি জায়গার নাম হচ্ছে নিঝুম দ্বীপ। ছোট এই দ্বীপটি নোয়াখালী জেলার হাতিয়া উপজেলায় অবস্থিত।

চেউয়া মাছ। এই মাছ দিয়ে শুঁটকিও বানান স্থানীয়রা।

আশেপাশে ঘুরে দেখার জন্য রয়েছে গাইড। দ্বীপের ভেতর চলাচলের জন্য রয়েছে রিক্সা এবং মোটরসাইকেল। এই দ্বীপটি আসলেই নিশ্চুপ, নিঝুম। যেন নামের সাথে রয়েছে এক অদ্ভুত মিল। বনের ভেতর দিয়ে নৌকা দিয়েও ঘুরে বেড়ানো যায়। সবুজ বনের মাঝখান দিয়ে নৌকা করে ঘুরে বেড়ানো অসাধারণ রোমাঞ্চ তৈরি করবে। নিঝুম দ্বীপে বসে উপভোগ করতে পারেন সূর্যাস্ত।

অনেকেই দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এই দ্বীপে ঘুরতে আসেন হরিণ দেখতে। যদিও এই দ্বীপ বর্ষাকালেই বেশি সুন্দর, তবে বর্ষাকালে বেশি দর্শনার্থীরা আসেন না। শীত কিংবা গ্রীষ্মেই পর্যটকদের ভিড় থাকে। প্রকৃতির কোলে অসাধারণ কিছু সময় কাটাতে সুন্দর এই দ্বীপটি ঘুরে আসতে পারেন। সবুজের সমারোহ, পাখির ঢাক, কচি ঘাসের উপর দিয়ে হরিণের ছুটোছুটি, বালুচরের পাশে বিশাল সবুজ মাঠ শহুরে ব্যস্ততা থেকে দূরে উপভোগ্য কিছু সময় উপহার দিবে। নামের মতই দ্বীপটি অনেক নিরব। অনেকেই ক্যাম্পিং করতে নিঝুম দ্বীপ যায়।

নিঝুম দ্বীপে যেতে হলে প্রথমে যেতে হবে নোয়াখালী। ট্রেনে কিংবা বাসে করে যেতে পারেন নোয়াখালী। আবার লঞ্চেও যাওয়া যায়। সেক্ষেত্রে সদরঘাট থেকে লঞ্চে করে যেতে হবে হাতিয়া। যাতায়াত পথ যদিও অতটা উন্নত নয়। হাতিয়া থেকে ট্রলার কিংবা লঞ্চে করে নিঝুম দ্বীপ যাওয়া যায়।

Nijhum Dwip: An island of silence, deer, greenery and calm nature



Zuaira Hossain


Travel | 19 March 2018


বাংলায় পড়ুন

Nijhum Dwip: Island of natural beauty

Nijhum dwip is located in Hatia upazila of Noakhali District. Once it was called char Osmani. This small island is very beautiful and made in a combination of Bollar char, Komolar char, Osman char and Char muri. The island has emerged in the 1950s. Initially, there were no people on this island. Later, Forest Department left four pairs of deer on this island. Currently, this island is the sanctuary of deer. Many claim this as the second large mangrove forest of Bangladesh. One of the main attractions of this island is the deer and the Kewra trees. There are some various kinds of trees as well. The Forest Department is taking more initiatives to increase the beauty of this island.

There is only buffalo and deer on this island. There are about 35 species of birds. In winter different types of migratory birds visit the island. There are many kinds of ducks


Bangladesh is full of natural beauty. There are many beautiful places here to visit. Nijhum dwip is a place where you can visit to enjoy the calm nature. This beautiful dwip is situated in Hatia of Noakhali.

as well. Hilsa fish is available here in the rainy season. Chewa fish is available at other times. Local people also make dry fish of chewa fish, which is very famous in local people.

You can easily find a guide to show you around the island. There are bikes and rickshaw to roam around the island. This is the perfect place to enjoy the serenity. You can also enjoy a journey by boat inside the island. It will amaze you. Also, another mesmerizing thing is enjoying the sunset on the island.

Every year many people visit the place to see the deer and roam around the island. The island offers more beauty in the rainy season. Tourists, however, do not visit much on the rainy season. This is an island of silent and tranquility. The meaning of Nijhum is silent. You can go there to spend some time away from the city life and it will relieve you from tiredness and give you peace. Many visit the island for camping.

To visit Nijhum Dwip you need to go to Noakhali first. There are buses and trains available from Dhaka. You can also travel by launch from Dhaka to Hatia. After that, you can travel to Nijhum Dwip from Hatia by launch or trawler.