২০১৮ সালের ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপে থাকছে লাল সবুজের বাংলাদেশের ছোঁয়া

খেলাধুলা দীপান্বিতা সূত্রধর || 4 June 2018

আবারও দরজায় কড়া নাড়ছে বিশ্বের অন্যতম জমজমাট আসর ‘ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ ২০১৮’। ফিফা র‍্যাংকি এর ১৯৭তম দেশ বাংলাদেশের ফুটবলের এর মহারণে অংশগ্রহণের সম্ভবনা কল্পনাতীত। মাঠের লড়াইয়ে না থাকলেও বাংলাদেশের নাম থাকছে ফুটবলের এই মহাযজ্ঞে। কিন্তু কিভাবে?


আবারও দরজায় কড়া নাড়ছে বিশ্বের অন্যতম জমজমাট আসর ‘ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ ২০১৮’। সারা দুনিয়ার মত বাংলাদেশেও শুরু হয়ে গেছে ফুটবল প্রেমীদের উন্মাদনা। টানা ২০ টি আসরের পর আগামী ১৪ জুনে শুরু হতে যাচ্ছে ২১তম ফুটবল বিশ্বকাপ আর এবার এর আয়োজক দেশ হল রাশিয়া। ফিফা র‍্যাংকি এর ১৯৭তম দেশ বাংলাদেশের ফুটবলের এর মহারণে অংশগ্রহণের সম্ভবনা কল্পনাতীত। মাঠের লড়াইয়ে না থাকলেও বাংলাদেশের নাম থাকছে ফুটবলের এই মহাযজ্ঞে। কিন্তু কিভাবে?
বাংলাদেশে তৈরি জ্যাকেট পরে এবার রাশিয়ার মাঠে নামবেন বিশ্বের নামীদামী খেলোয়াড়রা। আর্জেন্টিনা, জার্মানি, স্পেন, বেলজিয়াম, কলম্বিয়া, মেক্সিকো এবং স্বাগতিক দেশ রাশিয়া দলের অফিশিয়াল জ্যাকেট তৈরি হয়েছে বাংলাদেশে। এই ফুটবল দলগুলোর জার্সি, জ্যাকেট সহ অন্যান্য আক্সেসরিজ স্পন্সর করছে বিশ্বের খ্যাতনামা জার্মান স্পোর্টস বা ক্রীড়া সামগ্রী প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান অ্যাডিডাস।  জার্সি, জুতা, অন্যান্য জিনিসপত্র ছাড়া বাংলাদেশ থেকে শুধু জ্যাকেট তৈরি করে নিয়েছে অ্যাডিডাস। অত্যন্ত গোপনীয়তার সাথে চট্টগ্রামের কেপিজেডের ইয়াংওয়ানের অধীনস্থ প্রতিষ্ঠান কর্ণফুলী শু ইন্ডাস্ট্রিজের একটি কারখানায় তৈরি হয়েছে জ্যাকেটগুলো। 
আর্জেন্টিনা, জার্মানি, স্পেন, বেলজিয়াম, কলম্বিয়া, মেক্সিকো, স্বাগতিক রাশিয়া দলের অফিশিয়াল জ্যাকেটের কলারের নিচে থাকবে ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ ট্যাগ। জানা গেছে যে গত বছর অগাস্ট মাস থেকে এই জ্যাকেট তৈরির কাজ শুরু হয়। ডিসেম্বর থেকে ফেব্রুয়ারি মাসে সেগুলোর প্যাকেজিং আর জাহাজিকরণ সম্পন্ন হয়। 
বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় তৈরিপোশাক রপ্তানিকারক দেশ হিসেবে স্পোর্টস বা ক্রীড়া পোশাক তৈরির ব্যাপারটা বাংলাদেশের জন্য নতুন কিছু নয়। এর আগেও বিভিন্ন আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতাতেই ব্যবহৃত হয়েছে বাংলাদেশের তৈরি জার্সি। শুধু তাই নয়, বিশ্বকাপের গত আসরেও ব্রাজিল, ফ্রান্স দলের জার্সিতে ছিল ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ ট্যাগ। বিশ্বমানের এই জ্যাকেটগুলো রপ্তানির আগে যেন স্থানীয় বাজারে না যায় তার দিকে খেয়াল রেখেছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। 
দেশের ভিতরেও ইতিমধ্যে কিন্তু ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বকাপের উত্তাপ। দেশের অভ্যন্তরে ফুটবল সমর্থকদের জন্য বিভিন্ন দেশের পতাকা, জার্সি বানানো হচ্ছে। স্থানীয়ভাবে বানানো এই জার্সি ও অন্যান্য ক্রীড়া সামগ্রীগুলো তৈরির পরেই সোজা চলে যাচ্ছে পাইকারি ব্যবসায়িকদের কাছে। কেরানীগঞ্জের কালিগঞ্জের নুরু মার্কেট ছাড়াও বাড্ডা, গুমদা, বঙ্গবাজারসহ রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় এসব পোশাকের কারখানায় পুরো দমে কাজ চলছে। রাশিয়ায় বিশ্বকাপ ফুটবল শুরু হতে আর মাত্র সপ্তাহ বাকী। ফুটবলপ্রেমীরা সবাই প্রস্তুত এখন শুধু পর্দা উন্মোচনের অপেক্ষা। 

Messi-Ozil-Iniesta are going to wear 'Made in Bangladesh' tagged jacket

Sports Dipanwita Sutradhar on 4 June 2018

The 'Made in Bangladesh' tag has brought glory for the country before. 'Made in Bangladesh' tag will be visible under the collar of Argentina, Germany, Spain, Belgium, Colombia, Mexico, host Russia's official jacket.


World's one of the biggest shows- FIFA Football World Cup 2018 is about to begin. Like all over the world, the madness of football lovers has started in Bangladesh too. The 21st World Cup is going to start on June 14 and now its host country is Russia. Bangladesh, the 197th country of FIFA Ranking is unlikely to be able to take part in FIFA World Cup. Although Bangladesh is not participating there, the name of Bangladesh will be in this great show of football. But how?
Bangladesh made jerseys will be worn by the world's top-notch players in Football World Cup, 2018. Argentina, Germany, Spain, Belgium, Colombia, Mexico and host country Russia's official jacket has been made in Bangladesh. Adidas, the world's leading German sports goods manufacturer is sponsoring jerseys, jackets, and other accessories. The jackets have made at Karnaphuli Shoe Industry, a company owned by Youngone in Chittagong's KPZ secretly. 
'Made in Bangladesh' tag will be visible under the collar of Argentina, Germany, Spain, Belgium, Colombia, Mexico, host Russia's official jacket. It is known that the procedure of making jackets started in August 2017. All the products were delivered within the month of February of this year. 
The 'Made in Bangladesh' tag has brought glory for the country before. Previously, Bangladesh made jersey which was used in different international tournaments. Not only have that, in the last World Cup- Brazil and France team wore the jersey with 'Made in Bangladesh' tag. The concerned authorities were very aware so that the jackets cannot be exported to the local market illegally. 
The heat of world cup craze has been spread all over the country. Flags of different countries, jerseys are being made for football fans locally. Garment factories in different parts of Dhaka such as Badda, Gumda, Bangabazar, Keraniganj and other areas remain very busy for producing a huge amount of jerseys. The locally made jersey and other sporting goods are being sent straight to the wholesaler to factories. All the preparation of football fans are ready- everyone is just waiting for the curtain to fall.