বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের ১ অভূতপূর্ব সাফল্যের পর এবার আসবে বঙ্গবন্ধু ২

প্রযুক্তি ভাবনা দীপান্বিতা সূত্রধর || 20 June 2018

বঙ্গবন্ধু ১ স্যাটেলাইটের অভূতপূর্ব সাফল্যের পর এবার বাংলাদেশ সরকার বঙ্গবন্ধু ২ আনবে বলে জানিয়েছেন। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানান সাধারণত স্যাটেলাইটের মেয়াদ ১৫ বছর থাকে তাই বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১ এর পরে যেন ২ পাঠানো সম্ভব হয় তাই এখন থেকে তা নির্মাণের কাজ শুরু করা হয়েছে।


বঙ্গবন্ধু ১ স্যাটেলাইটের অভূতপূর্ব সাফল্যের পর এবার বাংলাদেশ সরকার বঙ্গবন্ধু ২ আনবে বলে জানিয়েছেন। দ্বিতীয় স্যাটেলাইটির কাজ শুরু হয়ে গেছে বলে জানা গেছে। এই বছরের গত ১০ মে বঙ্গবন্ধু স্যাট ১ সফলভাবে মহাকাশে যাত্রা করে এবং স্যাটেলাইটটি গাজীপুরের বেতবুনিয়া গ্রাউন্ড স্টেশনে তথ্য প্রেরণ শুরু করেছে। 
বঙ্গবন্ধু ১ এর কারণে বাংলাদেশের যোগাযোগ মাধ্যমে বেশ পরিবর্তন আসবে। বাংলাদেশ সরকার স্যাটেলাইট ফি দেয়ার জন্য বছরে প্রায় ১৪ মিলিয়ন ইউএস ডলার খরচ করে। টেলিভিশন, রেডিও, টেলিফোন এবং ইন্টারনেট সংযোগের জন্য মূলত স্যাটেলাইটের প্রয়োজন হয়। বঙ্গবন্ধু ১ এই ধরণের খরচ বাঁচিয়ে বাংলাদেশকে আরও স্বয়ং সম্পূর্ণ করে তুলবে। দক্ষিণ এশিয়ার বেশ কয়েকটি দেশ যেমন ভারত ও পাকিস্তানের নিজস্ব স্যাটেলাইট রয়েছে বেশ আগে থেকেই। শ্রীলঙ্কা ও কিছুদিনের মধ্যে তাদের নিজস্ব স্যাটেলাইট পাঠাবে। তাই বাংলাদেশ তার এই স্যাটেলাইট সার্ভিস আশেপাশের দেশ যেমন নেপাল, ভুটান, মায়ানমার কে দিয়ে বছরে প্রায় ৫০ মিলিয়ন ইউএস ডলার আয় করতে পারবে।  
সাস্টেইনেবল ডেভেলমেন্টের জন্য আজকের বিশ্বের সব দেশেরই রয়েছে নিজস্ব স্যাটেলাইট। ইন্টারনেট ব্যবস্থা, টেলিমেডিসিন, ই-লার্নিং থেকে শুরু করে তথ্যপ্রযুক্তি ভিত্তিক যেসব বিভাগ রয়েছে- সব ক্ষেত্রে বেশ পরিবর্তন আনবে এই স্যাটেলাইট। এছাড়াও বাংলাদেশের বিশেষ ভৌগলিক অবস্থানের কারণে বছরের নানা সময়েই ঘূর্ণিঝড়, জলোচ্ছ্বাস, টর্নেডোর মতো প্রাকৃতিক দুর্যোগ লেগেই থাকে। এখন বাংলাদেশের নিজস্ব স্যাটেলাইটের কারণে আবহাওয়ার পূর্বাভাস সংক্রান্ত বিভিন্ন ছবি, সিগন্যাল সব আগে থেকে পাওয়া যাবে এবং আগের থেকে প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে ঘটে যাওয়া ক্ষয় ক্ষতির পরিমাণ কমবে। 
বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশন যুক্তরাষ্ট্রের ভিত্তিক কনসালটেন্সি প্রতিষ্ঠান স্পেস পার্টনারশিপ ইন্টারন্যাশনাল (এসপিআই) এবং ইন্টারন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়নের (আইটিইউ) সহযোগিতায় স্যাটেলাইট তৈরির কাজ করেছে। স্যাটেলাইটের পুরো কাজটি সম্পন্ন হতে ২৯৬৭.২৯ কোটি টাকা খরচ হয়েছে এর মধ্যে প্রায় ১৭০০ কোটি টাকা ফান্ড পেয়েছে। 
বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১ এখন আপাতত ১১৯.৯° তে অবস্থান করছে। সার্ক ভুক্ত দেশগুল ছাড়াও ইন্দোনেশিয়া, উজবেকিস্তান, কাজাকিস্তান, ফিলিপাইনস, তুরকেমেনিস্তান সহ বেশ কিছু দেশ বাংলাদেশের এই স্যাটেলাইট ব্যবহার করতে পারবে। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আরও জানান সাধারণত স্যাটেলাইটের মেয়াদ ১৫ বছর থাকে তাই বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১ এর পরে যেন ২ পাঠানো সম্ভব হয় তাই এখন থেকে তা নির্মাণের কাজ শুরু করা হয়েছে। 

Process of making Bangabandhu Satellite 2 has been started already

Tech Dipanwita Sutradhar on 20 June 2018

After the unprecedented success of Bangabandhu 1, Bangladesh government will now bring Bangabandhu 2. Bangladeshi Prime Minister Sheikh Hasina said that Bangabandhu satellite 1 will expire after 15 years and after its expiration, Bangabandhu satellite 2 will be launched immediately.


After the unprecedented success of Bangabandhu 1, Bangladesh government will now bring Bangabandhu 2. The work process of making the second satellite has started. On the 10th of May of this year, Bangabandhu satellite 1 (BS 1) successfully launched into space and the satellite has started sending information to Gazipur's Betbunia Ground Station.
Bangabandhu 1 will bring a lot of change in communication sector of Bangladesh. The government of Bangladesh spent around 14 million US dollars a year to pay satellite fee. A Satellite is an essential component for television, radio, telephone and internet connection. Bangabandhu 1 will save this kind of cost and make Bangladesh more self-sufficient. Several South Asian countries such as India and Pakistan have their own satellite. Sri Lanka will send their own satellites within a few years. Nepal, Bhutan, Myanmar and some countries still do not have their own satellite. So, this is a great opportunity for Bangladesh and using BS 1 will be able to earn around 50 million US dollars annually through its satellite services.
In recent years most of the countries have their own satellite for the sake of sustainable developments. Bangladeshi satellites will bring changes in all areas of Bangladesh- from Internet systems, telemedicine, e-learning to any IT based products and services. Furthermore, due to a unique geographical location of Bangladesh, natural disasters such as cyclone, tidal surge, and tornadoes occur here in different parts of the year. Now due to its own satellite in Bangladesh, weather forecasting, signals will be available all the time and the concerned authority will be able to reduce the loss that usually happens due to natural disasters.
The Bangladesh Telecommunication Regulatory Commission has worked with the help of US-based Consultancy Company Space Partnership International (SPI) and the International Telecommunication Union (ITU). The entire work of the satellite has been completed by spending 2967.29 crore taka. 1700 crore taka of the total amount was received as a foreign loan.
Bangabandhu Satellite 1 is currently staying at 119.9° east longitude geostationary slot. Apart from other SAARC countries- Indonesia, Uzbekistan, Kazakhstan, Philippines, Turkey and many other countries can use this satellite of Bangladesh. Bangladeshi Prime Minister Sheikh Hasina also said that the satellite has a validity of 15 years yet satellite making process takes time. Bangabandhu satellite 1 will expire after 15 years and after its expiration, Bangabandhu satellite 2 will be launched immediately. For making that possible the construction work of Bangabandhu satellite 2 has been started already.