বাংলাদেশের প্রথম অ্যাপভিত্তিক বাইসাইকেল রাইড শেয়ারিং অ্যাপ জো বাইক এখন ঢাকায়



দীপান্বিতা সূত্রধর


ব্যবসা বাণিজ্য | 9 December 2019


Read in English

Jobike now in Dhaka. Credit: Unsplash.

বাংলাদেশের প্রথম বাইসাইকেল রাইড শেয়ারিং অ্যাপ তাদের কার্যক্রম ঢাকায় শুরু করেছে। সাধারণ রাইড শেয়ারিং অ্যাপের মত জো-বাইক নামের এই অ্যাপটি ডাউনলোড করে সাইন ইন করলেই সহজেই পেয়ে যাবনে আপনার প্রয়োজনের বাই সাইকেল। প্রথমে জো বাইকের কার্যক্রম শুরু হয় কক্সবাজারে। বাই সাইকেল পরিবেশবান্ধব আর সাশ্রয়ী হওয়াতে অন ডিমান্ড বাইসাইকেল রাইড ইতিমধ্যে বেশ সারা ফেলেছে। জো বাইক প্রথম যখন কক্সবাজারে তাদের সার্ভিস শুরু করে তখন মাত্র কলাতলী, সুগন্ধা আর লাবণী পয়েন্টে তাদের এই সেবা চালু করেছিল। এছাড়াও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে এই সেবা চালু আছে। প্রাথমিকভাবে মাত্র ২০ টি বাইসাইকেল দিয়ে শুরু হয় জো বাইকের পথচলা। সহজলভ্য আর আইওটি (ইন্টারনেট অফ থিংস) ভিত্তিক নিরাপত্তা সুবিধার জন্য এই সেবা ধীরে ধীরে হয়ে উঠছে জনপ্রিয়। জো বাইকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আর গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে মিরপুর ডিওএইচএস দিয়ে শুরু হয় তাদের ঢাকায় সেবা দেয়া। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মিরপুর ডিওএইচএস সোসাইটির সভাপতি ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মাহফুজুল হক, সাধারণ সম্পাদক অবসরপ্রাপ্ত লে। কর্নেল ইউ কান থিন,


বাংলাদেশের প্রথম বাইসাইকেল রাইড শেয়ারিং অ্যাপ তাদের কার্যক্রম ঢাকায় শুরু করেছে। প্রথমে জো বাইকের কার্যক্রম শুরু হয় কক্সবাজারে। বাই সাইকেল পরিবেশবান্ধব আর সাশ্রয়ী হওয়াতে অন ডিমান্ড বাইসাইকেল রাইড ইতিমধ্যে বেশ সারা ফেলেছে।

ডিওএইচএস ইউথ সোসাইটির সভাপতি তানজিম মাশরুর, সাধারণ সম্পাদক হাসান জারিফ আববর, জোবাইকের সহ-প্রতিষ্ঠাতা খান হেলালুজ্জামান আইয়ন ও আজহার কুদ্দর খান রুমন।  স্বাস্থ্য সচেতনতা আর পরিবেশ বান্ধব হওয়াতে চীন, ভারতসহ বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশে এরই মধ্যে অ্যাপভিত্তিক সাইকেল সেবা বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। আর প্রচলিত রাইড শেয়ারিংয়ের সাথে এর পার্থক্য হলো, চালকের জন্য অপেক্ষা না করে যাত্রী নিজেই চালাবেন বাই সাইকেল এবং ব্যবহারের পরে রেখে যাবেন নির্দিষ্ট স্থানে। জো-বাইক প্রতিষ্ঠানটির ধারণা করে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী ও চাকরিজীবীরা হবেন এর প্রধান গ্রাহক। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে চালু হওয়া এই সেবার জন্য চলাচল অনেক সহজ হয়েছে বলে মনে করেন শিক্ষার্থীরা। জো বাইক মোবাইল অ্যাপটি ডাউনলোড করার পরে ইউজারদের সাইন ইন করতে হবে, খুলতে হবে একটি নিজস্ব একাউন্ট আর তার সাথে ব্যবহারকারী পাবেন একটি কিউআর কোড। এ কোড স্ক্যান করলেই খুলবে সাইকেলের তালা। তালা খোলা থেকে বন্ধ হওয়া পর্যন্ত ভাড়া গণনা হবে। বর্তমানে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে প্রায় ১০০ টি, কক্সবাজারে ৫০ এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে ৫০ টির মত বাই সাইকেল জো বাইকের হয়ে সেবা দিয়ে চলেছে। এখন পর্যন্ত ৩৫ হাজার বারের উপরে জো বাইক অ্যাপটি ডাউনলোড করা হয়েছে আর ৩০ হাজারের উপরে প্রতিদিন ব্যবহৃত হয় এই মোবাইল অ্যাপ ভিত্তিক বাই সাইকেল রাইড শেয়ারিং সেবা। 
জো বাইক কর্তৃপক্ষ জানায় কিছুদিনের মধ্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে আরও ৫০ টি বাই সাইকেল প্রদান করবে তারা। এছাড়াও তারা কক্সবাজারে রোহিঙ্গাদের সেবায় নিয়োজিত ভলান্টিয়ারদের ২০ টি বাই সাইকেল দিয়েছে।

Bangladesh's first bicycle ride-sharing service Jobike is at Dhaka now



Dipanwita Sutradhar


Business | 9 December 2019


বাংলায় পড়ুন

Jobike now in Dhaka. Credit: Unsplash.

Bangladesh's first mobile app-based bicycle ride-sharing service is going to initiate their operation in Dhaka city now. Like the other riding sharing application, Jobike is easy to download and use. On-demand bicycle service Jobike started their operation in Cox's Bazar. Environment-friendly and cost-effectiveness basically attract the users to use this kind of facility. 
Jobike first started their service in Cox's Bazar, initially, their service was available only at Kotalali, Sugandha, and Labani Sea Beach Point. Now, the service is also available at Jahangirnagar University and Chittagong University campus. Jobike started their journey just with only 20 bicycles. Jobike has been gradually becoming popular due to the availability and IOT (Internet of Things) based strong security.
In the presence of Jobike's Chief Executive Officer and dignitaries- Mirpur DOHS is going to be facilitated their services in Dhaka. Mirpur DOHS president Brig Gen Mahfuzul Haque, general secretary retired Lt. Colonel Yu Kahin Thin, DOHS Youth


Bangladesh's first mobile app-based bicycle ride-sharing service is going to initiate their operation in Dhaka city now. On-demand bicycle service Jobike started their operation in Cox's Bazar and now it will be available in Mirpur DOHS.

Society President Tanjim Mashroor, General Secretary Hasan Zarif Abbar, co-founder of Zoocai Khan Helaluzzaman Ayon and Azhar Kuddar Khan Rumon were present on the inauguration program. 
For providing a healthy practice and environmental significance, a number of countries, including China, India, have already made popular use of app-based bicycle services. Besides, the difference with the usual riding sharing is that, without waiting for the driver, the passenger will run the bike by themselves and leave it after use- in a particular place. The Jobike Company's idea is that its main customer will be the university students and employees.
Jahangirnagar University has started to operate this service and students think that the movement becomes much easier for this service. After downloading the Jobike mobile app, users have to sign in, open their own account and a user will get a QR code. Scanning the code will open the bicycle lock and rent calculations will be counted until the lock is closed.
At present, about 100 bicycles at Jahangirnagar University campus, 50 in Cox's Bazar and 50 in Chittagong University campus are serving. Jobike app has been downloaded up to 35 thousand times and the app is used over 30 thousand daily. 
The Jobike Authority said that in a few days they will provide more 50 bicycles at Chittagong University campus. They also gave 20 bicycles to the Volunteers engaged in the service of Rohingyas in Cox's Bazar.