ঢাকা-আশুলিয়া সুপারহাইওয়ে প্রকল্প বাস্তবায়নে চীনা প্রতিষ্ঠান নিয়োগ

প্রযুক্তি ভাবনা দীপান্বিতা সূত্রধর || 2 January 2018

২০১৭ সালের নভেম্বর মাসে, সেতু বিভাগে জানায় যে, ঢাকা বিমানবন্দর থেকে আশুলিয়া পর্যন্ত ২৪ কিমি সুপার হাইওয়ে বা মহাসড়ক নির্মাণের জন্য একটি সুদূরপ্রসারী প্রকল্প প্রস্তাব করা হয়।


সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের মতে, একটি চীনা প্রতিষ্ঠান সিএমসি এলিভেটেড হাইওয়ে বা প্রসারিত মহাসড়কের অবস্থান নির্ণয়, প্রকৌশল এবং নির্মাণ কাজের সার্বিক দায়িত্ব পালন করবে। এই পুরো কাজটি সম্পন্ন হইতে ১২,৫৬৬.৪৭ কোটি টাকা ব্যয় হবে। বাংলাদেশ সরকারের অধীন সেতু বিভাগ উক্ত প্রস্তাব নিয়ে মন্ত্রিসভায় একটি প্রস্তাব স্থাপন করেছে।

চীনের জাতীয় যন্ত্রপাতি আমদানি ও রপ্তানি কর্পোরেশন বা ন্যাশনাল মেশিনারি ইমপোর্ট অ্যান্ড এক্সপোর্ট কর্পোরেশন (সিএমসি) ১৯৫০ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। এটি একটি আন্তর্জাতিক বাণিজ্য ও অর্থনৈতিক সহযোগিতা সংস্থা যা প্রধান বৈদেশিক বাণিজ্য কর্পোরেশনগুলির মধ্যে একটি। এই সংস্থাটি আগে চীনের বাণিজ্য মন্ত্রলায়ের সাথে সম্পর্কযুক্ত ছিল।

প্রস্তাব অনুযায়ী চীন ১৬ হাজার ৯০১ কোটি টাকার প্রকল্পটির ৬৫ শতাংশ অর্থ দেবে। চীনা এক্সিম ব্যাংক বার্ষিক ৪% সুদের হারে ১০,০৯৪.৮৯ কোটি টাকা ঋণ প্রদান করবে। বাংলাদেশ পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় ইতিমধ্যে ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরে এই বিশাল প্রকল্পের জন্য ৩,৮১৮ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে।

২০১৭ সালের নভেম্বর মাসে, সেতু বিভাগে জানায় যে, ঢাকা বিমানবন্দর থেকে আশুলিয়া পর্যন্ত ২৪ কিমি সুপার হাইওয়ে বা মহাসড়ক নির্মাণের জন্য উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাব করা হয় এবং এটি জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (ইকনেক) দ্বারা অনুমোদিত হয় ।

যখন এই মহাসড়করে নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হবে, তখন এটি ঢাকা বিমানবন্দরকে আব্দুল্লাহপুর, আশুলিয়া, এবং চন্দ্র হয়ে উত্তরবঙ্গের মহাসড়কের সাথে সংযুক্ত করবে। উক্ত সড়কের সাথে ২৬ কিলোমিটারের একটি রাস্তা সংযোজিত অংশ হিসাবে থাকবে যা ঢাকা বিমানবন্দরকে শনির আখড়ার কাছে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যুক্ত হবে।

প্রকল্প দস্তাবেজ অনুযায়ী, ২০১৭ সাল থেকেই উক্ত প্রকল্পের কাজ শুরু হওয়ার কথা এবং ২০২২ সালের জুন মাসের মধ্যে মহাসড়ক নির্মাণের কাজ শেষ হবে বলে আশা করা যাচ্ছে। এখন পর্যন্ত প্রসারিত মহাসড়ক নির্মাণে মোট খরচ ১৭,০১৯.১৮ কোটি টাকা। ঢাকা-আশুলিয়া এলিভেটেড হাইওয়ে নির্মাণের জন্য মোট ৩৭ হেক্টর জমির প্রয়োজন হবে। দুর্ভাগ্যবশত, এই সড়ক নির্মাণের জন্য যে জায়গা নির্ধারিত করা হয়েছে তার আশেপাশের বসবাসরত মানুষের ক্ষতি হতে পারে এবং সরকার সেইসব ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনের জন্য ২ হাজার কোটি টাকা খরচ করবে বলে জানিয়েছে।

আলকচিত্র স্বত্বঃ পিক্সেল

A Chinese firm to be appointed for Dhaka-Ashulia Eminent Superhighway Project

Tech Dipanwita Sutradhar on 2 January 2018

On November 2017 the Bridges Division sources the wide-ranging development project proposed for the 24 km superhighway from Dhaka Airport to Ashulia.


According to officials, CMC will execute the engineering, locating and construction works of the Dhaka-Ashulia Elevated Expressway. The total package would cost taka 12,566.47 crores. A proposal of the Bridges Division in this connection will be placed at the meeting of the Cabinet Committee on Public Purchase.

China National Machinery Import & Export Corporation (CMC) was founded in 1950. It was one of the major foreign trade corporations affiliated to the former Ministry of Foreign Trade and Economic Cooperation (the predecessor of the Ministry of Commerce).

According to the proposal, China will finance 65% of the taka 16, 901 crore project. Chinese Exim bank will provide a loan of taka 10, 094.89 crores at an annual 4% interest rate. The Planning Ministry has already allocated taka 3, 818 crores for the project under the 2017-2018 fiscal year.

In the month of November 2017; the Bridges Division sources supposed the development project proposed for the 24 km superhighway from Dhaka Airport to Ashulia and it was permitted by the Executive Committee of the National Economic Council (Ecnec).

When the expressway will be completed, it will link Dhaka Airport toward Abdullahpur, Ashulia, DEPZ, and Chandra on the North Bengal Highway. It will be an extension of the 26 km, joining the airport to the Dhaka-Chittagong Highway near Shanir Akhra.

According to the project document, the project mechanisms had to be started in 2017 and the work will be done in June 2022. The total cost of elevated thruway now stands at taka 17, 019.18 crores. A total of 37 hectares of land will be wanted for the construction of the Dhaka-Ashulia Elevated Expressway. Unfortunately, the rehabilitation of the affected people will cost about taka 2, 000 crore.

Photo Credit: Pexels